সাম্প্রতিক

নিঃসঙ্গী নিহিতার্থে । সৈয়দ আফসার

aaab 1লক্ষ

কে যেন চলে গেল বেলা শেষে
বৃষ্টির মতো হঠাৎ; ঘূর্ণিবাতাসে
.
আমাকে লক্ষ রাখছে ওই দুটি চোখ আশ্বাসে
                    মোহবন্ধনে, তার পাশে
.

 

শীতনিদ্রা

কতটা ওজন জেনেছ তুমি বন্দরে এসে
কতটা শিখেছ ভালোবাসাবাসি অগোচরে
.                         এলোমেলো ঘুরে
.
আমি তবে কেন যাব দূরে, শীতনিদ্রা ফেলে?
.
তুমি বরং ফিরে এসো এই পথ ধরে
দেখব কার উষ্ণতা নিয়ে জেগেছে শীতনিদ্রা
.                            নগরে-বন্দরে
 

ছায়া

সব পাখি ভর করে উড়ে যায় ডানায়
আমি তার ছায়া অনুসরণ করে হাঁটি
মুক্তি পাবার আশায় — যদি ছায়াও মুক্তি পায়
.
তুমি যদি মুক্ত হতে চাও ডানা চড়ে ওড়ো
চোখ ভরে দেখো কতদূর উড়ে গেছে ছায়া
বাঁধা পড়েছে কোন গাছের পাতায়
.
আমি তো জ্বলেছি একা — সান্ত্বনা পেয়েছি
.              নিজের অর্জিত ছায়ায়
 

ইতিঅবসরে

পাতার সবুজ প্রেম, প্রাণে ক্লোরোফিল
কার কাছে কে বাঁধা থাকে বলো চিরকাল
আমার হাতে বেঁধে রাখো তোমার নাকফুল
তুমি কি জানো, কারা ছিঁড়েছে সুতো, কারা সেজেছে কবিয়াল?
.
মানুষ মানুষের কাছে বাঁধা রবে আর-কতদিন, কতকাল?
.
দেখে নেয়া যেত তুমি ফিরে এলে —
ইতি-অবসরে কোথায় গড়িয়েছে কোথাকার জল
.

সান্ত্বনা

সব পথ পরিভ্রমণ করেছি বলে নতুন পথ খুঁজি
জল থেকে উঠে ভাবি, এ তো সবই ছিল আদি-অন্ত
.                             অহমের দহন প্রকাশ
.
গন্তব্যে ফিরেছি কলঙ্কী সেজে, কলঙ্ক তো আমারই ঘাড়ে
মল্লিকার কলঙ্কে মালা গেঁথে রেখে দেবো শুভ্র পাতায়
.
সব গ্লানি ধুয়ে নেবে যৌবনের স্রোতধারাজল
.

অঙ্কন

আঁকো দেখি সোনালি রোদ
গুণগত মান যাচাই করো তো সখি
সূর্যের হাসিচিহ্নিত ছায়ার
প্রসারিত করো উদাসীন চোখে বিষণ্ন বাতাস
দু-হাতে ছিঁড়ে ফেলো মৃত্তিকা কিংবা ভাসমান রাত
.

পাথরস্মৃতি

আমি পাথর কুড়াতে জানি
পাথর খোদাই করতে জানি না
পাথরের মতো দুঃখকে শক্তপোক্ত করে রাখি
দুঃখকে পাথর বানাতে পারি না
.
শুনেছি পাথর ঘষলে নাকি পাথরও ক্ষয়ে যায়
কিন্তু পাথর থেকে আগুন তুলে নেয়া যায় না
পাথর-অন্তরে আছে অগ্নি নিরবধি —
.
যারা অগ্নিভীত, ভুলেও যেও না তারা পাথর-খনিতে
যাব না আমিও আর পাথর কুড়াতে
.

স্রোত

তোমার কাছাকাছি এল আমার কাগজের নৌকো
স্রোতের বিপরীতে বৃষ্টি আর এক-টুকরো মেঘ
.
আর আমরা যারা স্বপ্ন ভেঙে জেগেছি —
দেখি ক্ষয়িত মুখাবয়ব
আর জ্যামিতির রূপে প্রবাহিত সব
.
মেরুনরণের শুভ্রতা ঘিরে আর স্পর্শের বিষমতায়
অভিষিক্ত আমি ইন্দ্রিয়পথে মিশে গেছি সীমাহীন কিনারে
.
দেখি কিনারে একাকার মিশে গেছে যাবতীয় স্রোতের বিপরীত স্রোত
.

আবছায়া

জলে ভাসে জল, চোখ হয় লীন
রহস্যে ঘিরে রাখো সব, স্থির থাকে মায়া
.
রাত্রি গভীর হলে ঘুরে আসে যে-মুখ —
সে কি তুমি?
.
দক্ষিণে সমুদ্রমহাল, উত্তরে আবছায়া

#  #

Comments

comments

সৈয়দ আফসার

সৈয়দ আফসার

সৈয়দ আফসার। কবি। সর্বশেষ কবিতাবই 'সেলাই গাছের কারখানা'; প্রকাশিত গদ্যবই 'ব্লগাবলি'; সম্পাদনা ও প্রকাশ করে চলেছেন 'অর্কিড' নামে একটি ছোটকাগজ, কাগুজে মুদ্রণে বেরোনো পত্রিকাটির এ-পর্যন্ত আটটি খণ্ড রয়েছে, ২০০০ খ্রিস্টাব্দ থেকে বেরোনো পত্রিকাটি এখনও সচল।

লেখকের অন্যান্য পোস্ট

Tags: , , , , , , , , , ,

লেখকের অন্যান্য পোস্ট :

সাম্প্রতিক পোষ্ট

লেখকসূচি