সাম্প্রতিক

খানসাহেবের খণ্ডজীবন – পর্ব ২ । সিরাজুদ দাহার খান

পূ্র্বসন্ধ্যায় খানসাহেব

14101912_10208271160629260_1097841876_nআজ গোধূলিলগ্নে হাতে একগোছা ফুল নিয়ে পাড়ার গলিতে ঢুকতেই খানসাহেবের খুদে বন্ধুরা তাঁকে জেরা শুরু করলো —
: আঙ্কেল, হাতে কী ফুল?
: দোলনচাঁপা
: কার জন্য? আন্টির?
খানসাহেব কোনো জবাব দেয়ার আগেই আরেকজনের কৌতূহল —
: কার হ্যাপি বার্থডে? আপু না ভাইয়ার?
: তোমাদের আন্টির…
কথা শেষ হওয়ার আগেই কথা কেড়ে নেয় ওরা —
: ও, আন্টির হ্যাপি বার্থডে? তাই তো আপনাকে আজকে বেশি খুশি খুশি লাগছে!
: না, তোমাদের আন্টির হ্যাপি বার্থডে না।
: তাহলে কার? আপুর?
: না।
: ভা্ইয়ার?
: না।
: তাহলে কার? আপনার? হ্যাপি বার্থডে, ডিয়ার আঙ্কেল!’ — বলে সবাই খানসাহেবকে জড়িযে ধরে।

খানসাহেব কিছুটা হতবিহ্বল হন। তিনি মুখ-ফসকে বলে ফেলেন —
: না না! কালকে তোমাদের আন্টির ম্যারেজ ডে।
: ও, আন্টির ম্যারেজ ডে! তাহলে আপনার ম্যারেজ ডে কবে?
: কালকে।একই দিনে। একসাথে!
: বাহ! দারুণ তো! দুজনের একই দিনে!
: আপনি খুব লাকি। আন্টির হ্যাপি ম্যারেজ ডে-তেই অপনার ম্যারেজ ডে!
খানসাহেব ওদের হাত থেকে মুক্তি পেতে দ্রুত ঘরমুখো হন।

টোয়েন্টি-এইট ইয়ার্স টুগেদার!

সময় গেলে

14172053_10208271164909367_1325308325_nযেখানেই যান, সেখানেই কারো-না-কারো সাথে খানসাহেবের সখ্য-বন্ধুত্ব-খাতির হয়ে যায়। মোহাম্মদপুর কৃষিমার্কেটেও এ-রকম বেশকিছু বিক্রেতার সাথে তার বেশ সখ্য। এর মধ্যে একজনের সাথে তার রীতিমতো দহরম-মহরম! খানসাহেব তার নাম দিয়েছেন — ‘ইংলিশ পেয়ারা’। দেখা হলেই সে স্মার্টলি হ্যান্ডশেক করবে —
: হাউ আর ইউ আঙ্কেল? হা্উ ইজ ইয়োর হেল্থ? তারপর বুকে জড়িয়ে ধরে উইশ করবে, অলমাইটি আল্লা ব্লেস ইউ! হাউ ইজ ম্যাডাম?
ভালো ইলিশ থাকলে দাবি নিয়ে দিবে; বলবে —
: খেয়ে দাম দিবেন …
বা, বলবে —
: দাম লাগবে না; …
না-থাকলে চোখের ইশারায় চলে যেতে বলবে।
খানসাহেব দু-একদিন সত্যিসত্যিই মাছ খেয়ে যাচাই করে পরে দাম দিয়েছেন।
রিপোর্ট খারাপ হওয়ায় একদিন সে দামই নেয়নি; অনেক জোর করার পর ৫০% দাম রাখল।
আবার কোনো-কোনোদিন দাম নিয়ে বার্গেইন করলে চাপাস্বরে মৃদু ঝাঁকুনি দেয় —
: কিপ কোয়াইট, কিপ কোয়াইট!
তার মানে, সে অন্যের চাইতে খানসাহেবরে কাছে বেশ কম দাম নিচ্ছে।

ঈদের দু-একদিন আগে দেখা হলে বলবে —
: গুড মর্নিং স্যার! ঈদ মুবারক!
তারপর মাছ কেনা শেষ হলে —
: আই রিয়্যালি লাভ ইউ স্যার!
খানসাহেব গদগদ হয়ে বলেন —
: মি ট্যু!
পেয়ারা বুকে হাত দিয়ে খাসা উচ্চারণে বলবে —
: ইটস মাই প্লেজার স্যার!
তারপর বিদায়ের সময় চমকে দিয়ে বলবে —
: ঈদ মুবারক ওয়ান্স অ্যাগেইন!

দু-একদিন জোর করে মাছ দিতে চাইলে খানসাহেব তাকে জ্ঞানের কথা শোনান —
: আপ রুচি খানা, পর রুচি পহর্না। মানে, খাওয়া নিজের রুচিতে আর পোশাক পরা পরের রুচিতে!
পেযারা দু’বার শুনে খুশি মনে আত্মস্থ করে নেয় কথাটা —
: থ্যাংস্ অ্যা লট আঙ্কেল!

যা-হোক, একদিন মাছ কিনে ডানহাতে অন্য-একটা্ ভারি ব্যাগ ধরতেই খানসাহেব অস্ফুটে বলে ওঠেন —
: উহ!
মাস-চারেক আগে ক্রিকেট খেলার চোটে ব্যথা-পাওয়া তার ডানহাতের কব্জিতে একটু টান লাগে আবার। তিনি ওই অবস্থায়ই চলে যেতে নেন। কিন্তু বন্ধু পেয়ারা তার হাত থেকে ব্যাগটা নিয়ে তাকে আটকে দেয় —
: ওয়ট অ্যা বিট স্যার! প্লিজ রিমেম্বার ওয়ান থিং, ‘সময় গেলে …
খানসাহেব বিজ্ঞের মতো কথা কেড়ে নেন —
: সাধন হবে না।
পেয়ারা কিঞ্চিৎ অধৈর্য্য হয় —
: আঙ্কেল, লেট মি ফিনিশ ফার্স্ট; দ্যেন্ ইউ উইল স্যে হোয়াটএভার ইউ লাইক।

সে আবার শুরু করে —
: একটা কথা মনে রাখবেন, ‘সময় গেলে …
খানসাহেব আবার কথা কেড়ে নেন —
: সাধন হবে না।
এবার সে বিরক্ত হয় —
: ওহ আঙ্কেল, সামটাইমস ইউ টক ট্যু মাচ। লেট মি ফিনিশ ফার্স্ট।
খানসাহেব এবার ভড়কে গিয়ে থমকে যান।
পেয়ারা আবার শুরু করে —
: সময় গেলে, আরও সময় পাবেন; বন্ধু গেলে বন্ধু পাবেন। কিন্তু হাত গেলে হাত, আর জীবন গেলে জীবন ফিরে পাবেন না। জীবন একটাই!
কী কইছি আঙ্কেল? সময় গেলে …
খানসাহেব বলেন —
: সময় গেলে সময় পাবো; কিন্তু হাত গেলে হাত, আর জীবন গেলে জীবন ফিরে পাবো না।

পেয়ারা এবার হৃষ্টচিত্তে খানসাহেবকে বিদায় দেয় —
: সো! বি কেয়ারফ্যুল্, বি কশাস্ অ্যাবাউট ইয়োর হেল্থ অ্যান্ড লাইফ! মে অলমাইটি আল্লা ব্লেস ইউ!!

 

Comments

comments

সিরাজুদ দাহার খান

সিরাজুদ দাহার খান

সমাজোন্নয়ন ও জনশিক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়নের কৌশল প্রণয়ন ও উপদেশনার কাজে ব্যাপৃত। প্রশিক্ষণ ও অধিপরামর্শ তৎপরতা চালনে সহায়ক একাধিক বোধিনী পুস্তক ও নির্দেশনগ্রন্থের প্রণেতা। ‘মাইন্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ্রোচ’ শীর্ষক বিশেষ একটি প্রশিক্ষণ সঞ্চালনকৌশলের উদ্গাতা। বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিষয় নিয়ে বিদ্যায়তনিক অধ্যয়ন সেরেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। গোড়ার দিককার গণথিয়েটার ম্যুভমেন্টের তৎপরতা ছাড়াও জড়িত ছিলেন বাংলাদেশ লেখক শিবিরের সঙ্গে নিবিড়ভাবে। পেশাজৈবনিক লেখালেখির পাশাপাশি নেশাজৈবনিক লেখার প্রতি নিবিষ্ট হচ্ছেন ক্রমশ।

লেখকের অন্যান্য পোস্ট

Tags: , ,

লেখকের অন্যান্য পোস্ট :

সাম্প্রতিক পোষ্ট

লেখকসূচি