যুক্তরাজ্যে সাসেক্স বাংলাদেশী ক্যাটারার্স এসোসিয়েশনের শেফ এওয়ার্ড ২০১৬ (ভিডিও)

মাহি রহমান : জাঁকজমক ও বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যেদিয়ে শেষ হলো যুক্তরাজ্যের সাসেক্সে প্রথমবারের মত  সাসেক্স বাংলাদেশী ক্যাটারার্স এসোসিয়েশনের শেফ এওয়ার্ড ২০১৬ ও গালা ডিনার। গত ১ নভেম্বর মঙ্গলবার ওয়ার্দিং এর এসেম্বলী’ হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ২টি ক্যাটাগরিতে শেফদের সম্মাননা জানানো হয়। এতে মূলধারার রাজনীতিবিদ, কারীশিল্পের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ ও কমিউনিটির বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন। এ শিল্পকে রক্ষায় করণীয় নানা বিষয় উঠে আসে বক্তাদের বক্তব্যে।

কারী শিল্পকে রক্ষায় যারা সবচেয়ে বেশি পরিশ্রম করে থাকেন তাদেরকে মূল্যায়নের জন্য এ আয়োজন। গ্রেটার সাসেক্সকে ৩টি রিজিউনে ভাগ করে  টেইকওয়ে এবং রেস্টুরেন্টের শেফ দেরকে আলাদা ভাবে ৫ জন চেম্পিয়ান এবং ৫ জন রানারআপ নির্বাচিত করা হয় । প্রতিযোগিতায় ৩ জন দক্ষ বিচারক ছিলেন, বিচারকরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ফুড হাইযিন মান টিকরেখে খাবারের টেস্ট এবং খাবার পরিবেশনা বিবেচনা করে দক্ষ শেফ নির্বাচন করেন।

%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b8-2Brighton and Crawley Zone — Takeaway, Chef of the year 2016, winner. Sayed Chowdhury, Kashmir Balti  Takeaway, Haywards Heath, runner up. Majid Ali, Velvety Ginger, Brighton and Crawley Zone Restaurant, Chef of the year 2016, winner. Osman Ali, Zari restaurant, runner up. Mujibur Rahman, Shapla. Bognor Regis & Littlehampton Zone Restaurant, Chef of the year 2016, winner. Ahsan Kabir, Cinnamon restaurant, runner up. Mofijur Shah Rahman, Reema restaurant, Worthing Zone. Restaurant, Chef of the year 2016, winner. Mohammed Ali, Mahaan restaurant, runner up. Maruf Ahmed Pathan, Shaan restaurant, Worthing Zone. Takeaway, Chef of the year 2016, winner. Abdullah Mukul, Original Curry Land, runner up. Koyrul Islam, Sunderban Takeaway.

%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%b8-3এছাড়া আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয় গ্রেটার সাসেক্সের প্রভিন ব্যাবসায়ি Bognor Regis, Megna restaurant সহ সাসেক্সের একাধিক রেস্টুরেন্টের সত্যাধিকারি জনাব আব্দুল মজিদ সাহেবকে।

প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ওয়ার্দিং কাউন্সিলের মেয়র সিন ম্যাকডোনাল্ড, ইষ্টবর্ণ কাউন্সিলের ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর হারুন মিয়া। সংগঠনের চেয়ারম্যান তফজ্জুল হোসেন, সাধারন সম্পাদক আজকর আলী।

আরো বক্তব্য রাখেন কারী লাইফের প্রধান সম্পাদক সৈয়দ নাহাস পাশা, এফওবিসির চেয়ারম্যান ইয়াওর খান, বিবিসিএর জেনারেল সেক্রেটারী শাহনুর খান, সেলিব্রেটি শেফ ওলি খান, বিসিএর চিফ ট্রেজারার মিঠু চৌধুরী, চ্যানেল এস এর এমডি তাজ চৌধুরী, এটিএন এর সিইও হাফিজ আলম ব্কস, শেফ অনলাইনের এমডি এম এ মুনিম সালিক, সংগঠসহ সভাপতি এম এ কাইয়ুম মিয়া প্রমুখ।

15033675_10209098057620822_1258882404_nএতে আরো উপস্থিত ছিলেন মাহতাব মিয়া, ট্রেজারার মিলাদ হোসেন চৌধুরী, সাবেক সভাপতি আব্দুল আব্দুল মন্নান, সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ ওয়াহিদ, সহ ট্রেজারার জিলাউর রহমান মজিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল ইসলাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শামীম আহমেদ, মেম্বারশীপ সেক্রেটারী মিলিক মিয়া চৌধুরী, প্রেস সেক্রেটারী জাকারিয়া আহমদ, সহ প্রেস সেক্রেটারী ফুরকান এম রাসেল, সহ ধর্ম সম্পাদক আবুুল ফয়সল আজাদ শোয়েব, ক্রীড়া সম্পাদক আজাদ আলী, সহ ক্রীড়া সম্পাদক মঈন উল্লাহ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক তারিক মিয়া, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক তাহিদ মিয়া কয়েস, স্বাস্থ্য সম্পাদক সৈয়দ শামীম হোসাইন, সহ স্বাস্থ্যসম্পাদক খয়রুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য কুদ্দুস আলী ইসমাইল, ফয়জুর রহমানসহ গ্রেটার সাসেক্স বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যবসায়ী ও কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে কারী শিল্পের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রাখেন। দক্ষ শেফ ও ষ্টাফ সংকটসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত এ শিল্পকে রক্ষায় সকলেকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার কোন বিকল্প নেই বলে মনে করেন বক্তারা।

ভবিষ্যতে আরো বড় পরিসরে অনুষ্ঠান আয়োজনে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন উদ্যোক্তারা। এছাড়া কারী শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলেরসাহায্য সহযোগীতা কামনা করেন তারা। বিবিসি এশিয়ান নেটওয়ার্কের উপস্থাপিকা নাদিয়া আলী ও সংগঠনের যুগ্মসাধারন সম্পাদক আব্দুল মুহিত নূর অনুষ্ঠানের পরিচালনা করেন।

Save

Save

Save

Save

Save

Comments

comments

মাহি রহমান

মাহি রহমান

রাশপ্রিন্ট কন্ট্রিবিউটর

লেখকের অন্যান্য পোস্ট

Tags: , , , ,

লেখকের অন্যান্য পোস্ট :

সাম্প্রতিক পোষ্ট

লেখকসূচি