সাম্প্রতিক

কান্নার রঙ আকাশ । শামসুল হুদা মুস্তফা প্রহরী

কান্নার  রঙ  আকাশ

১৬  জ্যৈষ্ঠ,  ১৪২৬  বঙ্গাব্দ  ।
২৪৪৩০০৫১৯

প্রিয়  বরেষু,

জীবনের  সব  গল্পই  একরকম  হয়  বলেই  কি  জীবনের  রং  ধূসর  !  সব  কিছুই  কেমন  যেনো  ফ্যাকাসে,  শেষ  বলে  কিছু  নেই  তবুও  শেষটা  কেমন  জানি  ।

জীবন  আমার  খুউব  একটা  ভালো  যাচ্ছেনা  ।  যেনো  নীল  আকাশ  থেকে  খসে  পরছি  অন্ধকারে  ।  খুউব  অন্ধকারে  ডুবে  যাচ্ছি  ।  মাথার  ভিতরে  যন্ত্রণা  সব  ফুটন্ত  গরম  পানির  মতো  ফুটে  চলছে  ।  এই  সব  বড়  কষ্ট  লাগে,  জাহান্নামের  আগুনে  পতিত  হওয়ার  মতো  অসহায়  লাগে  ।

যে খা নে   ঈ শ্ব রো   স হা য়   ন ন  ।

খুউব  শূন্য  হয়ে  আছে  হৃদয়,  একটা  হলদে  শুকনো  পাতার  মতো  একটু  একটু  করে  মরে  যাচ্ছি  ।  এই  ব্রম্মান্ডে  এ্যাকা  এ্যাকা  বেঁচে  মরার  নাম  কি  জীবন  !  যদি  তাই  হয়  তবে  আমি  বহু  আগে  মরে  গিয়েছি  ।

এ্যাতো  এ্যাতো  প্রাণের  ভিড়ে  অনুভূতি  শূন্য,  প্রেম  শূন্য,  ভালোবাসা  শূন্য  ।  আর  মায়া  বড্ড  পানসে  ।  শেষ  কবে  ভালোবেসেছি,  প্রেমে  পরেছি,  মায়ায়  ডুবেছি  সবকিছু  ভুলতে  বসেছি  ।  ভুলতে  বসেছি  সেই  নারীকে  –  যে  নারী  আজও  আমায়  পাগলের  মতো  ভালোবাসে,  অপেক্ষা  সাজায়,  অবহেলা  জেনেও  চুমু  খায়  ।  সব  কিছু  মোহ  জেনেও  জড়িয়ে  ধরে  আটকে  রাখতে  চায়  ।

আ মি   পা রি না  ।

আমি  পারিনা,  পারিনা  খুউব  করে  প্রেমে  পরতে,  ভালোবাসতে,  মায়ায়  জড়িয়ে  থাকতে  ।  আমি  যে  পাষাণ  !  কতবার  বলেছি,  ফিরে  যাও  –  এখানে  আমিটা  আমি  নই  –  আমার  কাছে  কিছু  ন্যাই  শূন্যতা  ছাড়া  !  সে  কেঁদে  উঠে  –  আমার  শূন্য  বুকের  উপর  ।  সে  ঘুমোয়  আমার  শূন্য  হৃদয়ে  ।

সে  আমায়  প্রেমিক  হতে  বলে  কিন্তু  আমি  তো  প্রেমিক  হতে  গিয়ে  হারিয়ে  যাই  ।  কোথায়  হারাই  !  কেনো  হারাই  !  কার  জন্য  হারাই  জানিনা,  জানি  শুধু  হারিয়ে  যাই  কাঁদতে  পারিনা  বলে  ।

আ মা র   কা ন্না র   রং   আ কা শ  ।

আমি  আকাশ  পাতাল  চোখে  মাখিয়ে  জাহান্নামে  বৃষ্টি  নামাই  ।  সেই  বৃষ্টি  ফুটন্ত  শীলা  হয়ে  আমার  হৃদয়কে  জ্বলসে  দ্যায়  । আমি  চিৎকার  করে  উঠি  !  এখানে  জীবন  ন্যাই,  প্রেম  ন্যাই,  ন্যাই  ভালোবাসা  !  আছে  কেবল  এক  নক্ষত্র  শূন্যতা  ।

আবার  নিঃস্ব  হতে  চলেছি  !  নিঃস্ব  নাকি  মৃত্যুকে  আলিঙ্গন  !  যদি  বুঝাতে  পারতাম,  যদি  দেখাতে  পারতাম,  কতশতবার  মরে  গিয়েছি  !  তবে  আর  কতবার  মরে  গ্যালে  এই  নিঃস্বতার  হবে  শেষ  !  যদি  সব কিছুর  রং  থাকতো  তবে  নিঃস্ব  নামের  রং  দিতাম  বেগুনী  ।

আমি  বেগুনী  হয়ে  যেতাম  !  আমার  বুকের  ভিতর  জ্বলন্ত  সূর্য্যকে  খামচে  ধরে  ডুব  দিতাম  জলে  ।  হতাম  রঙিন  মাছ  ।
তারপর  ভেসে  যেতে  যেতে  ভেসে  যেতে  যেতে…  !

ইতি
প্রহরী

Comments

comments

প্রহরী

প্রহরী

গান থেকে অভিনয় তারপর লেখালেখি শুরু, তবে সাহিত্য চর্চার চেয়ে নিজেকে ইদানীং আবৃত্তিতে ভালো মনে হয়। আঁকাআঁকি, গল্প কিংবা নাটকের স্ক্রিপ্ট থেকে কবিতা লিখতেই বেশি ভালোবাসি কিন্তু বইয়ের পাতায় এখনো নাম লিখাতে পারিনি । তবে ভালোবেসে নিজের নাম রেখেছি প্রহরী ।

লেখকের অন্যান্য পোস্ট

লেখকের সোশাল লিংকস:
FacebookYouTube

Tags: ,

লেখকের অন্যান্য পোস্ট :

সাম্প্রতিক পোষ্ট

লেখকসূচি